1. numanashulianews@gmail.com : kazi sarmin islam : kazi sarmin islam
  2. yoyorabby11@gmail.com : Munna Islam : Munna Islam
  3. admin@newstvbangla.com : newstvbangla : Md Didar
ষড়যন্ত্রকারীরা নির্বাচন আসলেই এক হয়ে যায়: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী - NEWSTVBANGLA
শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ০৭:৪৭ পূর্বাহ্ন

ষড়যন্ত্রকারীরা নির্বাচন আসলেই এক হয়ে যায়: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রতিনিধি

আব্দুল্লাহ আল নোমান, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট (সাভার):  স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, আমরা সব সময় দেখে আসছি ষড়যন্ত্রকারীরা নির্বাচন আসলেই এক হয়ে যায় আরেকটা নতুন ষড়যন্ত্রের জন্য। শেখ হাসিনা শুধু আমাদের নেতা নয়, তিনি বিশ্বনন্দিত নেতা। তিনি কারও রক্তচক্ষু কিংবা ধমকে মাথা নত করেন না বা ঘাবড়ে যান না। শনিবার (১০ জুন) দুপুরে ঢাকার ধামরাইয়ের বৈন্যা-কুশুরা পুলিশ ক্যাম্প উদ্বোধন উপলক্ষে মাদক ও সন্ত্রাস বিরোধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

 

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তিনি সবসময় মাথা উঁচু করে চলতে শিখেছেন এবং আমাদের মাথা উঁচু করে চলতে শেখার প্রেরণা দিয়ে যাচ্ছেন। অনেক ষড়যন্ত্র হচ্ছে, বাংলাদেশের স্বাধীনতার সময় একদম শেষ মুহূর্তে আমাদের বাঁধাগ্রস্ত করার জন্য প্রচেষ্টা চলছিল। সেদিন যে বন্ধুরা আমাদের পাশে দাঁড়িয়েছিল তারা হল আমাদের প্রকৃত বন্ধু। আমাদের শুরুতে যারা রক্ত চক্ষু দেখিয়েছিলেন তারা আজকে নানান ধরনের বিভ্রান্তিকর প্রচেষ্টায় রয়েছে।

মন্ত্রী বলেন, রাজাকার আল-বদরের বাইরে বলবো না, আমি সঙ্গে সঙ্গে বলব যারা স্বাধীনতার বিরোধী শক্তি তারা আজকে একত্রিত হয়ে দুঃস্বপ্ন দেখছেন আবারও নাকি ক্ষমতায় আসবেন। কি করে আসবেন? মানুষের ভোট পেতে হবে তো। যেখানে জনগণ এক কথায় বলছেন শেখ হাসিনার বিকল্প শুধুমাত্র শেখ হাসিনা। তাহলে কিভাবে আসবেন, ভোটেই তো আসবেন না আপনারা।

 

আসাদুজ্জামান খান বলেন, তারা ভোটে বিশ্বাস করে না, ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে তাদের যদি কেউ গদিটা পাইয়ে দেয় সেই ধরনের ষড়যন্ত্র তারা করে চলেছেন। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী কোন ষড়যন্ত্রকে বিশ্বাস করেন না, কারো মাসেল পাওয়ারে বিশ্বাস করেন না, দান পাওয়ারে বিশ্বাস করেন না। তিনি জনগণের শক্তিকে বিশ্বাস করেন। তাই কোন অপশক্তি চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়ানোর সক্ষমতা রাখে না।

তিনি আরও বলেন, এদেশের মানুষও উন্মুখ হয়ে বসে আছেন। নির্বাচন হতে যাচ্ছে, আমাদের নির্বাচন কমিশন শীঘ্রই নির্বাচনের ডাক দিবেন। সেই সময় আবারও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মার্কাকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করে আমাদের আলোকিত বাংলাদেশের যাত্রা অব্যাহত থাকবে।

 

জামায়াত সম্পর্কে মন্ত্রী বলেন, বাইতুল মোকাররমের উত্তর গেটে জামায়াত সবসময় তাদের অনুষ্ঠানাদি করত। জামায়াতকে এবার বলে দেওয়া হয়েছে ওই জায়গায় অনুষ্ঠান করলে একটা তীব্র যানজটের সৃষ্টি হতে পারে। সেজন্য তারা যেন অন্য কোন ভেন্যু বেছে নেয়। তারা ভেন্যু পরিবর্তন করে অন্য জায়গায় গিয়েছেন।

 

বিদ্যুৎ বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, কিছু কিছু লোক বলছেন আমরা বিদ্যুৎ পাইনা। আমরা বিদ্যুৎ উৎপাদনের সক্ষমতা তৈরি করেছি। আমাদের এখন ২৪ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ তৈরি করার সক্ষমতা রয়েছে। আমাদের যেটা চাহিদা সেটা আমরা দিয়েছি। সারা বাংলাদেশে আমরা বিদ্যুতায়ন করেছি। এখন বিদ্যুতের ঘাটতি কেন প্রশ্ন আসতে পারে। আপনারা নিশ্চয়ই জানেন যেটার মধ্যে আমাদের হাত নেই। রাশিয়া ইউক্রেনের যুদ্ধে আমাদের বিদ্যুৎ তৈরির উপাদান গুলোর সবগুলোর পরিবহন ব্যয় তিনগুণ চার গুণে রূপান্তরিত হয়েছে। এলএমজির দাম ৩ থেকে ৪ গুন বেড়েছে। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন জুনের শেষে বিদ্যুতের ঘাটতি থাকবে না।

 

তিনি বলেন, আমরা কিন্তু অন্ধকার দিনের কথা ভুলি নাই। আমাদের যদি দুই ঘন্টা বিদ্যুৎ থাকতো তাহলে ৬ ঘন্টা থাকত না। কোন গ্রামে বিদ্যুৎ যায় নাই এখন কিন্তু দুর্গম চর সহ সব জায়গায় বিদ্যুৎ আমরা দিয়েছি। সেখানে বসে ইন্টারনেটে ছেলেমেয়েরা ডাক্তারের সাথে যোগাযোগ করছে, গোটা বিশ্বের সাথে যোগাযোগ স্থাপন করছে। এটাই তো আমাদের বাংলাদেশ। সেই জায়গাতেই খেয়াল করে আমি আপনাদেরকে বলবো এটা একটা সাময়িক সমস্যা। অবশ্যই যে বিদ্যুৎ আমরা ঘরে ঘরে দিয়েছি সেটা অব্যাহত থাকবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমাদের দ্রব্যমূল্যের দাম অবশ্যই কিছু বেড়েছে। সরকারের পক্ষ থেকে আমরা ভর্তুকি দিচ্ছি। ভর্তুকি দিতে দিতে আমাদের অর্থনীতিতে একটু চাপ পড়েছে। তারপরও আমাদের কোনটারই কমতি নেই। আমরা আজকে ৭ লাখ ৬১ হাজার কোটি টাকার বাজেট দিয়েছি। প্রধানমন্ত্রী সব কিছুই করে দেখিয়েছেন, আমরা আগামীতেও দেখিয়ে দেব যে আমরা পারি। বাঙালি জাতি মাথা নত করার জাতি নয়, বাঙালি সব সময় মাথা উঁচু করে চলবে এটাই হলো বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ।

 

ঢাকা জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আসাদুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা-২০ আসনের সংসদ সদস্য ও ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব বেনজির আহমেদ, বাংলাদেশ পুলিশের ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি সৈয়দ নুরুল ইসলাম, সাবেক সচিব সোহরাব হোসেন, ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পনিরুজ্জামান তরুণসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2015
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: রায়তাহোস্ট