1. numanashulianews@gmail.com : kazi sarmin islam : kazi sarmin islam
  2. yoyorabby11@gmail.com : Munna Islam : Munna Islam
  3. admin@newstvbangla.com : newstvbangla : Md Didar
প্রথম প্রান্তিকে স্মার্টফোন বিক্রি বেড়েছে চীনে - NEWSTVBANGLA
মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ১০:০২ পূর্বাহ্ন

প্রথম প্রান্তিকে স্মার্টফোন বিক্রি বেড়েছে চীনে

প্রতিনিধি

স্মার্টফোনের বাজার হিসেবে বিশ্বে শীর্ষ স্থানে থাকা চীনে ২০২৩ সালের প্রথম প্রান্তিকে ৬ কোটি ৫৪ লাখ ইউনিটের বেশি স্মার্টফোন বিক্রি হয়েছে, যা আগের বছরের তুলনায় ১১ দশমিক ৮ শতাংশ বেশি। সম্প্রতি ইন্টারন্যাশনাল ডাটা করপোরেশন প্রকাশিত প্রান্তিকওয়ারি মোবাইল ফোন ট্র্যাকিং প্রতিবেদন সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

২০২৩ সালের প্রথম প্রান্তিকে ১৯ দশমিক ৬ শতাংশ হিস্যা নিয়ে অভ্যন্তরীণ বাজারে শীর্ষে আসে অপো। দুটি ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইস বাজারজাতের মাধ্যমে যে উদ্যোগ নেয়া হয়েছিল সেটি অপোর জন্য সুফল বয়ে আনছে। কোম্পানিটির ফাইন্ড এন২ ও ফ্লিপ সিরিজ প্রথম প্রান্তিকে ফোল্ডেবল বাজারে শীর্ষে ছিল। এছাড়া অতিসম্প্রতি উন্মোচন করা ফাইন্ড এক্স-৬ সিরিজ আরো বেশি জনপ্রিয়তা পায়। এর মাধ্যমে অপোর ফ্ল্যাগশিপ সিরিজের বাজার হিস্যা উল্লেখযোগ্য হারে বেড়েছে।

১৭ দশমিক ৬ শতাংশ হিস্যা নিয়ে চীনের বাজারে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে অ্যাপল। জানুয়ারিতে সরবরাহ স্বাভাবিক হওয়ার পর ছয় মাসের মধ্যে অ্যাপল প্রথমবারের মতো পণ্যের দাম পুনর্নির্ধারণ করে। ফেব্রুয়ারিতে কুপারটিনোর প্রযুক্তি জায়ান্টটি আইফোন ১৪ প্রো ও ম্যাক্সের চ্যানেল মূল্য কমিয়েছে। এ দুটি ডিভাইসের ভালো চাহিদা ছিল এবং বিক্রিও হয়েছে অনেক। তবে নতুন রঙের ভার্সন আনার পর আইফোন ১৪ ও প্লাস সেভাবে বাজারে প্রভাব বিস্তার করতে পারেনি।

বছরের প্রথম প্রান্তিকে চীনের বাজারে তৃতীয় অবস্থান দখলে রেখেছে ভিভো। বিশেষ করে ভাঁজযোগ্য ডিভাইস এক্স ফোল্ড ২ ও এক্স ফ্লিপ বাজারজাতের জন্য প্রস্তুত। প্রযুক্তিবিদ ও বিশ্লেষকদের আশা, এ দুটি ডিভাইস ফ্ল্যাগশিপ বাজারে ভিভোর হিস্যা বাড়াতে সহায়তা করবে। অফলাইন বাজারে এস১৬ সিরিজ ভালো পারফর্ম করেছে এবং ২০০-৪০০ ডলারের বাজারে শীর্ষস্থান অর্জনে ভিভোকে সহায়তা করেছে।

অভ্যন্তরীণ বাজারে চতুর্থ স্থানে রয়েছে অনর। এর ম্যাজিক ৫ সিরিজটি বাজার অবস্থান তৈরিতে সহায়তা করেছে। তবে শাওমি পঞ্চম স্থানেই রয়েছে। ৪০০-৬০০ ডলারের সেগমেন্টে কোম্পানির বাজার হিস্যা ১০ শতাংশ বাড়াতে সহায়তা করেছে শাওমি ১৩। অন্যদিকে রেডমি নোট ১২ সিরিজ বাজারে গ্রাহকের পছন্দের শীর্ষে ছিল।

অন্যদিকে বছরের প্রথম তিন মাসে ভাঁজযোগ্য ডিভাইসের বাজার স্থিতিশীলই ছিল। এ সময় ১০ লাখ ২০ হাজার ইউনিট ডিভাইস বাজারজাত করা হয়েছে, যা আগের বছরের তুলনায় ৫২ দশমিক ৮ শতাংশ বেশি। বর্তমানে আরো অনেক প্রতিষ্ঠান এ খাতে ডিভাইস বাজারজাতে কাজ করছে। তাই সংশ্লিষ্টদের আশা, চলতি বছর চীনের বাজারে ভাঁজযোগ্য সেলফোনের বাজার আরো বাড়বে।

তথ্যসূত্র:অনলাইন ডেক্স

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2015
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: রায়তাহোস্ট