1. numanashulianews@gmail.com : kazi sarmin islam : kazi sarmin islam
  2. admin@newstvbangla.com : newstvbangla : Md Didar
‘প্রতিবেদন প্রত্যাশিত নয় যুক্তরাষ্ট্রের’ - NEWSTVBANGLA
বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৪:১২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
বাংলাসহ বিশ্বের সকল ভাষা-শহীদগণের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা: প্রধানমন্ত্রী শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি ঘানার পররাষ্ট্রমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদন সাংবাদিকের জন্য ২ কোটি ৩ লাখ টাকা অনুমোদন নওগাঁর সাপাহারে সরফতুল্লাহ ফাজিল মাদ্রাসা কেন্দ্রের ৫৯ জন পরীক্ষার্থী বহিষ্কার গণ পাঠাগার এর উদ্যোগে একুশে বইমেলা ২০২৪ উদ্বোধন মান্দায় জিয়া সাইবার ফোর্সের উদ্যোগে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত আমতলীর অধিকাংশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার না থাকায় ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা হারিয়ে যেতে বসেছে আবহমান বাংলার চিরচেনা রক্তলাল শিমুল গাছ ভোটাধিকার ফিরিয়ে আনার আন্দোলন অব্যাহত থাকবে : বিএনপি যে কারণে ইতিহাসে অম্লান ঐতিহাসিক আমতলী গেট

‘প্রতিবেদন প্রত্যাশিত নয় যুক্তরাষ্ট্রের’

প্রতিনিধি

বাংলাদেশে ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হয়নি বলে মনে করছে যুক্তরাষ্ট্র। বৈশ্বিক মানবাধিকার প্রতিবেদনে বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে এ মত তুলে ধরা হয়েছে।

বাংলাদেশসহ বিশ্বের ১৯৮টি দেশ ও অঞ্চলের মানবাধিকার পরিস্থিতির ওপর ভিত্তি করে প্রতিবেদনটি তৈরি করা হয়েছে। প্রতিবেদনের বাংলাদেশ অংশে বিচারবহির্ভূত হত্যাসহ বেআইনি বা নির্বিচারে হত্যা, গুম, নির্যাতন, কারাগারের অবস্থা, নির্বিচারে গ্রেপ্তার বা আটক, রাজনৈতিক বন্দি, কোনও ব্যক্তির অপরাধের জন্য পরিবারের সদস্যদের শাস্তি, সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে সহিংসতা বা সহিংসতার হুমকি, সাংবাদিকদের অযৌক্তিক ভাবে গ্রেপ্তার বা বিচার, মতপ্রকাশ সীমিত করার জন্য ফৌজদারি মানহানি আইন কার্যকর, স্বাধীন মতপ্রকাশ এবং মিডিয়ার ওপর বিধিনিষেধ, ইন্টারনেট স্বাধীনতার ওপর নিষেধাজ্ঞা, শান্তিপূর্ণ সমাবেশের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপের মতো বিষয়গুলোও তুলে ধরা হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের এই প্রতিবেদন প্রত্যাশিত নয় বলে মনে করছেন আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া। বিবিসি বাংলাকে তিনি বলেছেন, এই প্রতিবেদন প্রত্যাশিত নয়। রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ যেভাবে লবিস্ট ফার্মের পিছনে মিলিয়ন মিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করেছে সরকারের বিরুদ্ধে, দেশের গণতন্ত্রের বিরুদ্ধে মানবাধিকার সম্পর্কিত তথ্য নিয়ে যে বিভ্রান্তি তৈরি করেছে, আমি মনে করি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের যে প্রতিবেদন সেখানে তারই প্রতিফলন থাকতে পারে।

মিডিয়ার ওপর বিধিনিষেধ প্রসঙ্গে বিপ্লব বড়ুয়া বলেন, সরকারের তরফ থেকে কোনো ধরনের বিধিনিষেধ নেই কোন সংবাদ প্রচার করা যাবে, কোনটা যাবে না তার ওপর। ডিজিটাল বাংলাদেশ জন্মলাভ করেছে এই সরকারের আমলে। কিন্তু এই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে সরকারের বিরুদ্ধে ভুল তথ্য ছড়ানো হচ্ছে – ইন্টারনেটে স্বাধীনতা নেই, গণমাধ্যমের স্বাধীনতা নেই এমন সব কথা বলে।

দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে বিদেশে লবিস্ট নিয়োগ করে সরকারের ওপর চাপ তৈরি করা যাবে না বলেও মন্তব্য করেন বিপ্লব বড়ুয়া।

তিনি আরও বলেন, জনগণের রায় ছাড়া কখনও বাংলাদেশের শাসনভার গ্রহণ করেননি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বলেছেন বাংলার জনগণ ছাড়া তিনি আর কারও কাছ থেকে কোনো ভয়ভীতি বা এ ধরনের কোনো চাপের কাছে নতি স্বীকার করবেন না।

তিনি প্রশ্ন রাখেন- বাংলাদেশে শেখ হাসিনার সময় দুর্নীতি দমন কমিশন স্বাধীনভাবে কাজ করছে। সরকারের অনেক মন্ত্রী কিন্তু দুদকের মামলায় কারাগারে গেছেন, সাজাও পেয়েছেন। অন্য সরকারের আমলে কি এমন কোনো নজির ছিল?

তিনি বলেন, আমরা বলছি না ত্রুটি নেই। ত্রুটি আছে। কিন্তু আমাদের সরকার সেগুলো চিহ্নিত করে ত্রুটি দূর করার চেষ্টা করে যাচ্ছেন। তার জন্য সকলের কাছ থেকে সহযোগিতা প্রত্যাশা করে যাচ্ছি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2015
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: রায়তাহোস্ট