সদ্যোজাত যমজ সন্তানের মধ্যে ছেলেকে হারিয়েছেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো !

post top

বাংলাদেশ সময় সোমবার মধ্যরাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পর্তুগিজ মহাতারকা নিজেই এই দুঃসংবাদ জানান।

রোনালদো ও জীবনসঙ্গীনী জর্জিনা রদ্রিগেসের সই করা বিবৃতিতে বলা হয়, ছেলেকে হারানোর কষ্টে তারা ‘বিধ্বস্ত।’

“খুব কষ্টের সঙ্গে আমাদের জানাতে হচ্ছে যে, আমাদের শিশু পুত্র আমাদের ছেড়ে চলে গেছে। এটা কতটা কষ্টের, তা কেবল মাত্র মা-বাবাই বুঝতে পারে।”

“একমাত্র শিশু কন‍্যাই আমাদের এই কঠিন মুহূর্তকে কিছু আশা ও আনন্দ দিয়ে মোকাবেলা করার শক্তি দিতে পারে।”

চিকিৎকদের প্রতি কৃতজ্ঞতাও জানিয়েছেন শোকার্ত রোনালদো ও জর্জিনা।

“বিশেষ যত্ন ও সমর্থনের জন্য আমরা সব চিকিৎসক ও সেবিকাদের ধন্যবাদ জানাতে চাই।”

বিবৃতির শেষে আরও একবার নিজেদের গভীর কষ্টের কথা উল্লেখ করে এই কঠিন সময়ে তাদের ব্যক্তিগত গোপনীয়তা রক্ষারও অনুরোধ করেছেন তারা।

গত অক্টোবরে যমজ সন্তানের বাবা হওয়ার খবর দিয়েছিলেন রোনালদো।

পাঁচবারের বর্ষসেরা ফুটবলার প্রথম বাবা হয়েছিলেন ২০১০ সালের ১৭ জুন। সারোগেট মায়ের গর্ভে জন্ম নেয় তার প্রথম ছেলে সন্তান, যার নাম ক্রিস্তিয়ানিয়ো, এর অর্থ ছোট ক্রিস্তিয়ানো।

২০১৭ সালের জুনে গণমাধ্যমে খবর আসে, যুক্তরাষ্ট্রে আরেক সারোগেট মায়ের গর্ভে জন্ম নেয় রোনালদোর জমজ সন্তান। তাদের নাম এভা ও মাত্তেও।

এর এক মাস পর রোনালদো এক সাক্ষাৎকারে জানান, তিরি ও তার বান্ধবী রদ্রিগেস তাদের প্রথম সন্তানের অপেক্ষায় আছেন। ২০১৭ সালের নভেম্বরে জন্ম হয় ওই কন্যা শিশুর, তার নাম রাখা হয় আলানা মার্তিনা।

এরপর সম্প্রতি দ্বিতীয়বারের মতো জমজ সন্তানের বাবা হন রোনালদো।

গত শনিবার প্রিমিয়ার লিগে নরিচ সিটির বিপক্ষে রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে রোনালদোর হ্যাটট্রিকে ৩-২ গোলে জয় পায় ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। একটি গোলের পর রোনালদো বল তার জার্সির মধ্যে পেটের কাছে রেখে উল্লাস প্রকাশ করেন।

হয়তো আবারও বাবা হওয়ার আনন্দেই করেছিলেন সেটা। কিন্তু সেই খুশি স্থায়ী হলো না ক্লাব ও জাতীয় দল মিলিয়ে রেকর্ড ৮১০ গোল করা পর্তুগাল অধিনায়কের।

print

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two × 1 =