মাকে ধর্ষণ করো না খাতুনে জান্নাত।

post top
কবিতা লেখক খাতুন জান্নাত: যে মেয়েটির উজ্জ্বল দুটি ভ্রমর চোখ
গ্রামের পথের মতো সরু ভ্রু
তিলক আঁকা ঠোঁট
সরিষা মায়ার  কলমী পায়ের  পাতা
ঠিক তোমার মায়ের মতো…
হাঁটছে ধীরে ধীরে ধীরে
যেন পৃথিবীর সব ভয় তাকে ঘিরে
উদাস দৃষ্টিতে দেখছে দিকে দিকে
চাপা ফুলের  ঘ্রাণ তার বুকে
ভোরের সূর্যের মতো হাসি
নদীর বাঁকের মতো চাল
ঠিক তোমার মায়ের মতো…
প্রতি মাসে রক্তের স্রাবে ভাসা
ওর রয়েছে একটি জরায়ু তোমাকে জন্ম দিয়েছে তাই
তাঁর শরীরের  রক্ত চুকচুক করে খেয়ে তুমি বেড়ে উঠেছো
মায়ের জঠরে
দুটো স্তন তোমাকে বাঁচিয়ে রেখেছে
যখন  খেতে পারতে না তুমি
পৃথিবীর কঠিন খাবার
ছিলে  নরম কাদার মতো,
কচি শাপলার মতো কোমল কোমল
তুল তুল ফুল ফুল কচি কচি মুখ
তুমি বড় হলে
ওঁর চোখে জমলো একটি স্বপ্ন
তোমাকে মানুষ হতে হবে
পৃথিবী জয় করবে যে…
প্রতিদিন একটি ভালো কথা ভাবো
দুঃখী মানুষের দিকে তাকাও
যারা নষ্ট হতে চলেছে তাদের ফিরিয়ে আনো
তোমার দুটি হাতে একটি বৃক্ষ রোপন কর
তোমার দুটি চোখ ফুলের দিকে রাখো
তোমার মনের আলো সুন্দরের জন্য ধরো
চারদিকে সবুজ আর সবুজ
সবুজ  অবগাহন কর
তোমার রয়েছে একটি মন
তাকে জয় কর…
তুমি কাজ কর মানুষকে ধন্য করবে বলে
তুমি এগিয়ে যাও দেশকে সফল করবে বলে
তুমি আবিষ্কার কর পৃথিবী মুঠোয় পুরবে বলে
তুমি ভালোবাসো কাউকে আপন করবে বলে
ঐ যে বিচিত্র সুন্দর
হাঁটছে মেয়েরা
ওরা তোমার মা
তোমারই প্রাণপ্রিয় সহোদরা
দোহাই তোমার
মাকে ধর্ষণ করো না
মাকে ধর্ষণ করো না
মাকে ধর্ষন করো না
ধর্ষ
ণ করোনা সহোদরাকে
print

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

17 − 15 =