বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে ডেন্টাল বেসিক সায়েন্স উইং বা বিভাগ প্রতিষ্ঠা খুবই জরুরি!

post top

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) ডেন্টাল অনুষদের সব বিভাগকে সার্বিক উন্নয়নের মাধ্যমে ঢেলে সাজানোর প্রত্যয় ব্যক্তব করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ।

সোমবার (৩১ মে) দুপুরে বিএসএমএমইউয়ের ডেন্টাল অনুষদের মিলনায়তনে আয়োজিত এক সভায় উপাচার্য এই পরিকল্পনার কথা জানান।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে ডেন্টাল বেসিক সায়েন্স উইং বা বিভাগ প্রতিষ্ঠা খুবই জরুরি। ওরাল অ্যান্ড ম্যাক্সিলোফ্যাসিয়াল সার্জারি বিভাগের বেড সংখ্যা বৃদ্ধিসহ স্বতন্ত্র ওয়ার্ড প্রতিষ্ঠার দাবি দীর্ঘদিনের। এছাড়াও শিক্ষার্থীদের দক্ষতা বৃদ্ধি ও হাতে-কলমে কাজ শেখার জন্য স্কিলস সিমুলেটর ল্যাব চালুসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেন্টাল অনুষদের সব বিভাগকে সার্বিক উন্নয়নের মাধ্যমে ঢেলে সাজানো হবে।

অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ তার বক্তব্যে সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন ও গবেষণা কার্যক্রম জোরদার এবং গবেষণালব্ধ প্রকাশনার ওপর গুরুত্বারোপ করে বিশ্ববিদ্যালয়কে সামনের দিকে এগিয়ে নেওয়ার আহ্বান জানান। এসময় তিনি ডেন্টাল অনুষদের সামগ্রিক উন্নয়নে বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান প্রশাসনের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহায়তা দেওয়ার আশ্বাস দেন। 

সভায় ডেন্টাল অনুষদের ডিন অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আলী আসগর মোড়ল ডেন্টাল অনুষদের বিভাগগুলোতে শিক্ষকসহ প্রয়োজনীয় জনবল নিয়োগ, ডেন্টাল অনুষদের স্থান সংকুলানসহ ডেন্টাল অনুষদের উন্নয়নে সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনা উপস্থাপন করে বলেন, আজ পর্যন্ত ডেন্টাল অনুষদে বেসিক বিষয়ের কোনো বিভাগ বা উইং প্রতিষ্ঠিত হয়নি। শিক্ষাবান্ধব প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রত্যক্ষ হস্তক্ষেপে সমগ্র বাংলাদেশে বর্তমানে ৩৬টির বেশি ডেন্টাল কলেজ প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। এসব কলেজে ডেন্টাল বেসিক সাবজেক্টের শিক্ষক স্বল্পতা প্রকট। তাই ডেন্টাল বেসিক সাবজেক্টের শিক্ষক স্বল্পতা দূর করার জন্য ডেন্টাল বেসিক সাবজেক্টে উইং খোলা ও শিক্ষক তৈরির জন্য দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়া প্রয়োজন।

সভায় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএসএমএমইউয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান, উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. মুহাম্মদ রফিকুল আলম, উপ-উপাচার্য (গবেষণা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মো. জাহিদ হোসেন, উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ডা. একেএম মোশাররফ হোসেন, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আতিকুর রহমান, সার্জারি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ডা. ছয়েফ উদ্দিন আহমেদ, মেডিসিন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ডা. মাসুদা বেগম, নার্সিং অনুষদের ডিন অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ হোসেন, ডেন্টাল অনুষদের সাবেক ডিন অধ্যাপক ডা. মো. শামসুল আলম প্রমুখ।

দ্বিতীয় ডোজের ভ্যাকসিন নিলেন ১২০ জন

এদিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের কনভেনশন সেন্টারে আজ (সোমবার) মোট ১২০ জন কোভিড-১৯ এর দ্বিতীয় ডোজের টিকা নিয়েছেন। গত ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত প্রথম ডোজের টিকা নিয়েছেন ৫৪ হাজার ৫শ ৬৪ জন এবং আজ পর্যন্ত দ্বিতীয় ডোজের টিকা নিয়েছেন ৪৩ হাজার ৮শ ৫০ জন।

বেতার ভবনের পিসিআর ল্যাবে আজ পর্যন্ত ১ লাখ ৪৫ হাজার ৮শ ৪৬ জনের কোভিড-১৯ পরীক্ষা করা হয়েছে। এছাড়াও বেতার ভবনের ফিভার ক্লিনিকে এখন পর্যন্ত ৯৭ হাজার ৮শ ২০ জন রোগী চিকিৎসাসেবা নিয়েছেন। অন্যদিকে করোনা ইউনিটে আজ সকাল পর্যন্ত ৮ হাজার ৯শ ৬৭ জন রোগী সেবা নিয়েছেন। ভর্তি হয়েছেন ৪ হাজার ৯শ ৬৮ জন। সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরেছেন ৪ হাজার ২শ ২২ জন। বর্তমানে ভর্তি আছেন ৬৮ জন রোগী এবং আইসিইউতে ভর্তি আছেন ৭ জন রোগী। গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ৯ জন।

print

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nineteen + four =