ফোল্ডিং ফোন এবার অপো আনছে

post top

স্যামসাং, হুয়াওয়ে এবং মটোরোলার পর এবার ফোল্ডিং ফোন আনছে অপো। বছর খানেক আগে অপো মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস ইভেন্টে প্রোটোটাইপ ফোল্ডেবল স্মার্টফোন সম্পর্কে কিছু তথ্য সামনে এনেছিল। এরপর, অনেকটা সময় কেটে গেছে কিন্তু প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে এই বিষয়ে আর কোনো আপডেট পাওয়া যায়নি। তবে সম্প্রতি লেটস গো ডিজিটালের একটি প্রতিবেদনে এই ধরনের একটি নতুন স্মার্টফোনের পেটেন্ট প্রকাশিত হয়েছে। এই পেটেন্টটির সাথে, ২০১৯ সালের মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে প্রদর্শিত অপোর প্রোটোটাইপটির বেশ সাদৃশ্য রয়েছে। ছবি দেখে মনে হচ্ছে, এই ফোনটি ক্ল্যামশেল ডিজাইনের মটো রেজর ডিভাইসের ইনভার্টেড ভার্সন হবে, তবে এতে একটি ইউনিক অ্যাঙ্গেল ডিটেকশন মোড রয়েছে।

বর্তমান সময়ে এই ক্ল্যামশেলের মত স্মার্টফোনগুলো নিঃসন্দেহে সেরা বিকল্প হিসেবে বিবেচিত হতে পারে। যেমন, স্যামসাংয়ের গ্যালাক্সি ফোল্ড সিরিজের ফোনগুলো একটি ট্যাবলেটের মতো অভিজ্ঞতা দেয়। এদিকে, অপোর নতুন পেটেন্টটি দেখে মনে করা হচ্ছে, এটিতে স্ক্রিন ভাঁজ করে রাখার জন্য বাইরের দিকে বিশেষ ডিজাইন রয়েছে। এটি একটি কমপ্যাক্ট স্মার্টফোন হতে পারে যাতে মটো রেজর বা জেড ফ্লিপেড মতো এক্সটার্নাল পার্টে কোনো সেকেন্ডারি ডিসপ্লে থাকবে না। মজার ব্যাপার, ফোনটি ফোল্ড করা হলে এর ক্যামেরাটি একটি সেলফি স্নাপার হিসাবে সহজেই ফিট হয়ে বসে, আবার ফোল্ড ওপেন করলে সেটি ডিভাইসের রিয়ার ক্যামেরা হয়ে যায়।

প্রসঙ্গত, লেটসগোডিজিটাল তার প্রতিবেদনে নতুন পেটেন্টটির থ্রিডি রেন্ডার তৈরি করেছে। পেটেন্ট অনুযায়ী, ফোনের ফোল্ড অ্যাঙ্গেল ডিটেকশন ফিচারটি ডিভাইসের ‘ফোল্ডেড’ বা ‘আন-ফোল্ডেড’ অবস্থা নিজেই শনাক্ত করবে। ইউজার হ্যান্ডসেটটি যেভাবে ব্যবহার করবেন, সেই মত এটি সমস্ত ইউআই কমপোনেন্টগুলোকে সাজিয়ে নেবে। জানিয়ে রাখি, এতে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার এবং আইরিস স্ক্যানার থাকতে পারে।

আপাতত, অপো এই বিষয়ে কোনো ঘোষণা করেনি। এখন প্রতিষ্ঠানটি অন্যান্য চীনা সংস্থার মতই স্ক্রিনের গ্লাস ডেভেলপ করার চেষ্টা করছে। ফলে অপোর ফোল্ডেবল ডিভাইস বাজারে আসতে আরো কিছুটা সময় লাগবে এটাই স্বাভাবিক।

print

Share this post

post bottom

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

fourteen − seven =