ফরিদপুরে বিএনপির বিভাগীয় গণসমাবেশকে সামনে রেখে বিভিন্নচেকপোস্ট বসিয়ে তল্লাশি করেছে পুলিশ

post top

ফরিদপুরে বিএনপির বিভাগীয় গণসমাবেশকে সামনে রেখে সমাবেশস্থলসহ শহরের বিভিন্ন প্রবেশ পথে চেকপোস্ট বসিয়ে তল্লাশি করেছে পুলিশ। আগামী পাঁচ দিন এই কার্যক্রম চলবে।

শুক্রবার (১১ নভেম্বর) দুপুরে সরেজমিন দেখা গেছে, শহরের রাজবাড়ী রাস্তার মোড়ে ঢাকা-খুলনা মহাসড়ক ও ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের সংযোগ মোড়ে পুলিশ চেকপোস্ট বসিয়েছে। এছাড়া রাজবাড়ী থেকে ফরিদপুরে আসার পথে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের ফরিদপুর সদরের বাহিরদিয়া সেতু এলাকায় চেকপোস্ট বসানো হয়েছে।

তবে সমাবেশে আগত নেতা-কর্মীদের সঙ্গে আলাপ করে জানা গেছে, ঢাকা-বরিশাল সড়কের মুন্সিবাজার এবং ফরিদপুর চরভদ্রাসন সড়কের গজারিয়াতেও পুলিশের চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। ওইসব চেক পোস্ট দিয়ে আসা প্রতিটি মোটরসাইকেল, প্রাইভেট কার, মহেন্দ্র, ইজিবাইক এবং গাড়ি পুলিশ তল্লাশি করছে।

নগরকান্দা উপজেলা সদর থেকে ফরিদপুরে আসা কলেজছাত্র শায়ান মাহমুদ বলেন, অটোরিকশায় করে ফরিদপুর আসার পথে পুলিশ তিন জায়গায় চেক করেছে। তবে কোনো খারাপ ব্যবহার করেনি। চেক করেই আমাদের অটোরিকশা ছেড়ে দিয়েছে।

ফরিদপুর ট্রাফিক পুলিশের পরিদর্শক তুহিন লস্কর বলেন, এটা নিরাপত্তার অংশ হিসেবে করা হয়েছে। ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি মহোদয়ের নির্দেশে পাঁচ দিনব্যাপী সড়কে বিভিন্ন যানবাহন তল্লাশির জন্য একটি কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে ফরিদপুরে। তারই অংশ হিসেবে শহরের বিভিন্ন প্রবেশপথে চেকপোস্ট বসিয়ে গাড়িগুলো চেক করা হচ্ছে ।

তিনি বলেন, এই তল্লাশির উদ্দেশ্য হচ্ছে কোনো অস্ত্রধারী ব্যক্তি, কোনো সন্ত্রাসী, কোনো ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি যাতে শহরে প্রবেশ করতে না পারে। এদেরকে চিহ্নিত করা এবং এদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্যই শুক্রবার সকাল ছয়টা থেকে সড়কে চলাচল করা বিভিন্ন গাড়ি তল্লাশি করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, চট্টগ্রাম, ময়মনসিংহ, খুলনা, রংপুর ও বরিশালের পর শনিবার (১২ নভেম্বর) ফরিদপুরে বিভাগীয় গণসমাবেশের আয়োজন করেছে বিএনপি। এটি বিএনপির ষষ্ঠ বিভাগীয় গণসমাবেশ। এই সমাবেশকে ঘিরে ৩৮ ঘণ্টার পরিবহন ধর্মঘট ডাকায় ইতোমধ্যে বিভিন্ন উপায়ে সমাবেশস্থল ফরিদপুর কোমরপাড়া আব্দুল আজিজ ইনস্টিটিউশন মাঠে জড়ো হয়েছেন নেতা-কর্মীরা।

print

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

12 − 6 =