পুনর্মিলনীর টাকায় অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ালো পুলিশ সদস্যরা

post top

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট: করোনা ভাইরাসের বিস্তারের কারণে ভয়ংকর এক বিপর্যয়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে গোটা বিশ্ব। কোভিড-১৯ এ দিনে দিনে আক্রান্ত আর মৃত্যুর মিছিল কেবলই প্রলম্বিত হচ্ছে। এ দুর্যোগ থেকে রক্ষা পাওয়ার আপাতত সবচেয়ে ভালো দাওয়াই ঘরে থাকা। মানুষের ঘরে থাকা নিশ্চিত করতে নিজেদের সামর্থ্যের সবটুকু উজার করে দিচ্ছে বাংলাদেশ পুলিশ। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে লড়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ পুলিশের প্রত্যেক সদস্য। চলমান করোনাযুদ্ধে এ পর্যন্ত ৬ জন দেশপ্রেমিক পুলিশ সদস্য আত্মোউৎসর্গ করেছেন। আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় দেড় হাজার পুলিশ সদস্য। তবুও ‘মোর‍্যাল হাই’ রেখেই এগিয়ে চলছে বাংলাদেশ পুলিশ।

করোনাকালের দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি মানবিক সহায়তা কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে বাংলাদেশ পুলিশ। এরই ধারাবাহিকতায় মুন্সীগঞ্জ জেলা পুলিশ উদ্যোগে খাদ্য সংকটে থাকা পরিবারগুলোকে গোপণে খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে। সেই কার্যক্রমে শরীক হতে মুন্সীগঞ্জ জেলা পুলিশে কর্মরত থাকা কনস্টেবল পদমর্যাদার কিছু সদস্য তাঁদের ব্যাচের পুনর্মিলনীর জন্য জমানো টাকা দিয়ে অসহায় মানুষের জন্য খাবার কিনে দিতে পুলিশ সুপারের হাতে তুলে দিয়েছেন। ২০১৭ সালে তাঁরা বাংলাদেশ পুলিশে যোগদান করেন। গতকাল ০৭ মে ২০২০ খ্রিঃ তারিখে তাঁদের চাকরি জীবনের তিন বছর পূর্ণ হয়। কিন্তু নিজেদের পুনর্মিলনীর আনন্দ আয়োজন না করে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর পথকে বেছে নিয়েছেন তাঁরা। সর্বদাই জনগণের পাশে বাংলাদেশ পুলিশ।

নিউজটি শেয়ার করুন।

print

Share this post

post bottom

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one + 15 =