পঞ্চগড়ের আটোয়ারীতে পারিবারিক শত্রুতার জেরে খুন,বন্ধুত্বের মুখোশ পড়ে চলছিল পরিকল্পনা,গ্রেফতার ০৪

post top

মোঃ বেলায়েত বাবু:
র‍্যাব-১৩ এর হাতে মূল পরিকল্পনাকারী সহ গ্রেফতার,
গত ০৪ জানুয়ারি আনুমানিক রাত ০৮:৩০ ঘটিকার সময় প্রতিবেশি মতিউর রহমান মতি(মূল পরিকল্পনাকারী এবং হোতা)সিফাতকে বাড়ির পিছনে ফলজ বাগানে কৌশলে ডেকে এনে কোন কিছু বোঝার আগেই মাটিতে ফেলে বুকের উপর চেপে বসে গলাটিপে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী করে রাখা গর্তে মাটিচাপা দেওয়া হয় সিফাত এর মরদেহ।এরপর সিফাতের বাবাকে ফোন দিয়ে বলা হয় তার ছেলেকে অপহরণ করা হয়েছে, এবং মুক্তিপণের জন্য দাবি করা হয় আড়াই লক্ষ টাকা।

সিফাত নিখোঁজ হয় ০৪ জানুয়ারি ২০২১। তার বাবা আটোয়ারী থানায় গত ০৫ জানুয়ারি একটি নিখোঁজ এর সাধারণ ডায়েরি করে। এর পাশাপাশি ভিকটিমের বাবা নিখোঁজ ছেলেকে উদ্ধারের জন্য র‍্যাব-১৩, সিপিসি-২ (নীলফামারী) এর সাথে যোগাযোগ করলে কোম্পানি কমান্ডার সিনিয়র এএসপি মুন্না বিশ্বাস এর নেতৃত্বে একটি চৌকস আভিযানিক দল ছায়া তদন্ত শুরু করে।

তদন্তের এক পর্যায়ে র‍্যাব-১৩ জানতে পারে খুনের লৌহমর্ষক বর্ণনা। পারিবারিক শত্রুতার জেরে বলি হতে হয় ফাহিদ হাসান সিফাতকে, সিফাত নিজেকে বাঁচানোর জন্য প্রাণপণ চেষ্টা করেছিল , হয়তো শক্তি প্রয়োগ করেছিল কিন্তু পেরে ওঠেনি মতির(খুনি) সাথে। আগামী দিনের সূর্যের আলো দেখা হলোনা সিফাতের।

নিখোঁজ হওয়ার সংবাদ প্রাপ্তির মাত্র ১৮ ঘন্টার মধ্যে র‍্যাব-১৩ এর চৌকস আভিযানিক দলটি ঘটনার রহস্য উন্মোচনসহ, মূল আসামী গ্রেফতার, মৃতদেহ এবং অন্যান্য আলামত উদ্ধার করতে সক্ষম হয়।

print

Share this post

post bottom

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

fourteen + ten =