নোয়াখালী থেকে কামরুল হাসান শামীম নামের (২৭) এক সিরিয়াল ধর্ষণকারীকে আটক করেছে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন র‌্যাব ৪

post top

রাতে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ এলাকা থেকে তাকে আটক করে র‌্যাব ৪ । র‌্যাব ৪ বলছে,গ্রেফতারকৃত আসামী জিজ্ঞাসাবাদে জানায় যে, তার পেশা ও নেশা হচ্ছে ফেইসবুকে বিভিন্ন ট্রাভেল গ্রুপে যোগদান করে সেখান থেকে অস্বচ্ছল অসুখী ও একটু বয়স্ক মহিলাকে টার্গেট করে পরিচিত হওয়া; তারপর বিভিন্নভাবে প্রলুব্ধ করে দুর্বলতার সুযোগ নিয়ে অন্তরঙ্গ সম্পর্ক তৈরি করে বাংলাদেশের বিভিন্ন ট্যুরিস্ট লোকেশনে ঘুরতে যাওয়া সেখানে বিভিন্ন মিথ্যা প্রলোভন দিয়ে অন্তরঙ্গ মূহুর্তের বিভিন্ন আপত্তিকর ছবি, ভিডিও ধারণ করা, ঘুরাঘুরি শেষে যে যার কর্মস্থলে বা বাসায় যাওয়ার পর শুরু হয় ভয়-ভীতি প্রদর্শন। ধারনকৃত বিভিন্ন ভিডিও, ছবি বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়াসহ নিকট আত্মীয় এর নিকট ফাঁস করে দেওয়ার কথা বলে ভয়ভীতি দেখিয়ে টাকা-পয়সা থেকে শুরু করে স্বর্ণ গয়নাপত্র হাতিয়ে নেয়। এরপর ভুক্তভোগীর ফেসবুক একাউন্ট এবং ডিভাইস নিয়ন্ত্রণে নিয়ে ভুক্তভোগীর পরিচিতদের কাছ থেকে টাকা পয়সা চাওয়া থেকে শুরু করে তাকে সর্বদা চাপে রাখাসহ বিভিন্ন হুমকি দেয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃত ব্যক্তি তার কৃতকর্মের বিষয় ¯^ীকার করেছেন। তার মোবাইলের গোপন গুগল ড্রাইভে ১৪ জন মহিলার বিভিন্ন আপত্তিকর ও অশ্লীল ভিডিও, ছবি পাওয়া গেছে।
এবিষয়ে র‌্যাব ৪ এর সহকারী পুলিশ সুপার জিয়াউর রহমান চৌধুরী বলেন,গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে পর্নোগ্রাফি ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলার কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

print

Share this post

post bottom

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

13 − thirteen =