ধামরাইয়ে সাংবাদিককে প্রকাশ্যে জবাই করে হত্যা, আটক ২

post top

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট: ঢাকার ধামরাই উপজেলায় কর্মরত বেসরকারি বিজয় টেলিভিশনের সাংবাদিক ও ধামরাই প্রেস ক্লাবের সহ-সভাপতি জুলহাস উদ্দিন (৩৫) কে প্রকাশ্যে জবাই করে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত দুজনকে স্থানীয়রা আটক করে পুলিশে সোর্পদ করেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার (৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ধামরাই উপজেলার গাঙ্গুটিয়া ইউনিয়নের বারবারিয়া গ্রামের কালী মন্দিরের পাশে এ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে।

নিহত জুলহাস উদ্দিন ধামরাই উপজেলার গাঙ্গুটিয়া ইউনিয়নের দক্ষিণ হাতকোরা গ্রামের মৃত রইস উদ্দিনের ছেলে।

ডানে হত্যাকাণ্ডে জড়িত শাহীন ও মোয়াজ্জেম।

আটককৃতরা হলেন- নিহতের দ্বিতীয় স্ত্রীর প্রথম স্বামী শাহিন (৩৫), তিনি মানিকগঞ্জ জেলার বিষু ব্যাপারীর ছেলে এবং অপরজন রাজধানীর রাজপথ পত্রিকার মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি মোয়াজ্জেম (৩২)। তিনি মানিকগঞ্জ জেলার নুর মোহাম্মদের ছেলে।

এলাকার কয়েকজন বাসিন্দার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, জুলহাস সাত বছর আগে প্রথম বিয়ে করেন। প্রথম স্ত্রীর অনুমতি ছাড়া বছর দুয়েক আগে তিনি মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার বারাহিরচর গ্রামের শাহীন হোসেনের স্ত্রী সোমা আক্তারকে বিয়ে করেন। সোমা তাঁর স্কুলজীবনের বান্ধবী।

ধামরাই থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, জুলহাস বৃহস্পতিবার বিকেলে মানিকগঞ্জ থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। বেলা তিনটার দিকে তিনি বাসে করে এসে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের ধামরাইয়ের বারবাড়িয়া বাসস্ট্যান্ডে নামেন। এর পরপরই শাহীন ও তাঁর (শাহীন) বন্ধু মোয়াজ্জেম হোসেন তাঁকে গলা কেটে হত্যা করেন। এ সময় জনতা ধাওয়া করে শাহীন ও মোয়াজ্জেমকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন।

কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শী জানান, শাহীন ও মোয়াজ্জেম একই বাসে বারবাড়িয়া আসেন। তাঁদের মতে, পরিকল্পিতভাবেই জুলহাসকে হত্যা করা হয়েছে।

ধামরাই থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দীপক চন্দ্র সাহা বলেন, এ ঘটনার পর প্রথম জুলহাসকে সাভারের গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখান থেকে মানিকগঞ্জ ২৫০ শয্যার হাসপাতালে নেওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসকেরা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত ছুরি উদ্ধার করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে পারিবারিক কলহের জের ধরে নিহতের ২য় স্ত্রীর আগের স্বামী এই হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে।

এদিকে সাংবাদিক জুলহাসের মুত্যুতে ধামরাইয়ে কর্মরত সাংবাদিকদের মাঝে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। তারা খুনিদের দ্রুত বিচারের দাবি জানিয়েছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন।

print

Share this post

post bottom

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

4 × 5 =