ঢাকা জেলা পুলিশের উদ্যোগে,সাভারে মঞ্চ নাটক অভিশপ্ত ১৫ আগষ্ট অনুষ্ঠিত হয়েছে

post top

মোঃ দিদারুল ইসলাম গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকা জেলা পুলিশের উদ্যোগে, সাভারের পার্বতীনগর এলাকায় এনাম মেডিক্যাল কলেজ এন্ড হাসপাতালের অডিটরিয়ামে এই মঞ্চ নাটক অনুষ্ঠিত হয়।

মঞ্চ নাটকটির পরিকল্পনা গবেষণা ও তথ্য সংকলক, ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি, মোঃ হাবিবুর রহমান বিপিএম (বার), পিপিএম (বার)।

 

নাটকটির রচনা ও নির্দেশনা, নারায়ণগঞ্জ জেলার পুলিশ পরিদর্শক, মোঃ জাহিদুর রহমান।

 

১৫ আগষ্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ তাকে স-পরিবারে কিভাবে ঘাতকরা হত্যা করে সেই দৃশ্য ফুটিয়ে তোলা হয়।

 

নাটকটিতে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট কালরাত্রিতে সপরিবারে বঙ্গবন্ধুর মর্মান্তিক হত্যাকাণ্ডের পূর্বাপর ঘটনা তুলে ধরা হয়েছে। বিশেষ করে ১৪ আগস্ট ইতিহাসের খলনায়ক খন্দকার মোশতাকের সঙ্গে ঘাতকচক্রের সদস্য মেজর ফারুকসহ অন্যদের বঙ্গবন্ধুকে হত্যার ষড়যন্ত্র এবং ১৫ আগস্ট রাতে বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সদস্যদের মর্মান্তিক হত্যার করুণ আলেখ্য তুলে ধরা হয়।

 

“অভিশপ্ত ১৫ আগস্ট মঞ্চ নাটকের মাধ্যমে”এর ৩৮ ও ৩৯ তম পরিবেশনা মঞ্চস্থ নাটকটিতে অভিনয় করেন, বাংলাদেশ পুলিশের নাট্য দল।

 

এসময় মঞ্চ নাটকে ঢাকা জেলা পুলিশ সুপার মোঃ মারুফ হোসেন সরদারের সভাপতিত্বে নাটকে এসময় প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,সাভার উপজেলা পরিষদের সুযোগ্য চেয়ারম্যান ও সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুরুল আলম রাজীব তিনি এসময় তার অনুভূতি ব্যক্ত করে বলেন,জীবনে যত নাটক দেখেছি আমার জীবনের শ্রেষ্ঠ নাটক অভিশপ্ত আগস্ট। মঞ্চায়নটি দেখার পর একটি পৈশাচিক ঘটনার বিবরণ দর্শকদের মাঝে আরো স্পষ্ট হয়েছে। সারাদেশে এটি প্রচারের জন্য পুলিশ বাহিনীর প্রতি অনুরোধ জানান তিনি।

 

পুলিশের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে তিনি বলেন, পঁচাত্তরের পর ১৫ আগস্ট নিয়ে যে অপপ্রচার হয়েছে। সারাদেশে যদি এই নাটকটি উপস্থাপন করা যায় এবং পুলিশ বাহিনীর সদস্যরাই যদি অভিনয় করে তাহলে সমাজ উপকৃত হবে। বঙ্গবন্ধু কে ছিলেন নতুন প্রজন্ম উপলব্ধি করতে পারবে এবং বঙ্গবন্ধুর সপরিবারকে কিভাবে নৃশংস হত্যা করা হয়েছিল এটি জানতে পারবে এবং তাদের মনের মধ্যে একটি পরিবর্তন আসবে।

 

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সাভার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইউএনও মাজহারুল ইসলাম বলেন, অভিশপ্ত আগস্ট নাটকটিতে একটি ইতিহাসকে জীবন্ত করে তুলে দিয়েছে দর্শকদের সামনে । দর্শকবৃন্দ যারা বিভিন্ন মাধ্যমে ১৫ ই আগস্ট সম্বন্ধে জেনেছেন আমি বিশ্বাস করি এখানে তাদের কাছে এটি ভিন্ন মাত্রা যোগ করেছে এবং তাদের মনের মধ্যে এটি শক্ত ভিত এর গাঁথুনি তৈরি হয়েছে। নাটকটির মাধ্যমে ১৫ ই আগস্টের প্রকৃত তথ্য দেখানো হয়েছে কিভাবে এই নারকীয় হত্যাকাণ্ড ঘটেছিল।

 

অসাধারণ উপস্থাপনার জন্য নাটকটির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, ইতিহাসকে যেভাবে ছোট্ট একটি মঞ্চ নাটকে নিখুঁতভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন এটি আমার দেখা শ্রেষ্ঠ নাটকগুলোর মধ্যে অন্যতম।

 

অভিশপ্ত আগস্ট মঞ্চ নাটকে সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন, সাভার মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ, কাজী মাইনুল ইসলাম পিপিএম,ও সাভার মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক, ওসি (অপারেশন) মো: আল আমিন সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে এসময় অন্যান্য অতিথিবৃন্দ দের মাঝে ঢাকা জেলা উত্তরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(অপরাধ) আব্দুল্লাহ হিল কাফী, ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন-সাধারন সম্পাদক মাসুদ চৌধুরী, সাভার প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক গোবিন্দ আচার্য, সাভার মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) কামাল হোসেন, সাভার মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (ইন্টেলিজেন্স) মাকারিয়াস দাস,সাভার মডেল থানার ট্যানারি পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক, মোঃ জাহিদুল ইসলাম,সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন-সাধারন সম্পাদক ও তেঁতুলঝোড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফখরুল আলম সমর, সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক লিয়াকত হোসেন, আশুলিয়া থানা আওয়ামী লীগের আহবায়ক ফারুক হাসান তুহিন,আশুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহাব উদ্দিন মাদবর, বনগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম,সাভার পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রমজান আহমেদ, ঢাকা জেলা উত্তর ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ সাইদুল ইসলাম,সাধারণ সম্পাদক মোঃ মনিরুল ইসলাম, সাভার উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আতিকুর রহমান আতিক , সাধারন সম্পাদক, মোঃ ফিরোজ কবিরসহ পুলিশের আরো অনেক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও আওয়ামী লীগের অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের সর্বস্তরের নেতাকর্মীরা।

print

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

thirteen + fourteen =