কমছে কৃষি জমি কিন্তু বাড়ছে ফসল

post top

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশের কৃষিতে এসেছে ব্যাপক পরিবতন। কমছে কৃষি জমি কিন্তু বাড়ছে ফসল । সেই সাথে দেশে কৃষিতে আসছে নতুনত্ব।

সাভারের তেঁতুলঝোড়া ও ভাকুর্তা ইউনিয়নের বেশ কয়েকটা গ্রামে চাষ হচ্ছে ভিন্ন ধরনের সবজি, যা রান্না হয় শুধু চায়নিজ খাবার গুলোতে ।

এই সব সবজী চাষে পাল্টে দিয়েছে গ্রামগুলোর নাম। পরিচিত হয়ে উঠেছে চায়না সবজি গ্রাম হিসাবে। ঐতিহ্যবাহী সবজী নয় কিন্তু মানুষের রুচির পরিবর্তনে বিদেশী সবজির চাহিদা বাড়াতে এই দুই ইউনিয়নে ব্যাপক চাষ হচ্ছে বিদেশী সবজী ।

চায়না সবজী চাষে কৃষকদের আগ্রহ বেশি কারন মুনাফাটা অধিক মাত্রায়। সাভারের একটি বিশাল এলাকা জুড়ে চাষ হচ্ছে চায়না সবজি ।

এগুলোর মধ্যে রয়েছে মাশরুম, ব্রকলি ,ক্যাপসিকাম, চায়নাপাতা, চংবিং পেয়াজ, গোলাপী, বাঁধাকপিসহ ২২ জাতের সবজী । বাণিজ্যিকভাবে চাষ করা এসব বিদেশী সবজী বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।
বেকার যুবকদের উৎসাহিত করেছে এই চাষ। বদলে দিচ্ছে তাদের জবীনযাত্রা। বিদেশী সবজীর ব্যাপক চাহিদা বেড়ে যাওয়ার কারনে অনেকে বাড়ীর ছাদেও করছে এর চাষাবাদ।

এখানকার উৎপাদিত বিদেশী সবজী ঢাকা, চট্রগ্রামে বিভিন্ন চাইনিজ রেস্তোরা ও পাঁচতারা হোটেলেও বিক্রি হচ্ছে। ট্রাকে ট্রাকে সবজী চলে যাচ্ছে রাজধানীর কারওয়ান বাজারে ।

দেশী সবজির চেয়ে চায়না সবজির দাম ভালো পাওয়ায় দিন দিন বাড়ছে এখানে চায়না সবজির চাষ।
সাভার উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ নাজিয়াত আহমেদ বলেন,চায়না সবজি চাষীদের উপজেলা কৃষি অফিসের পক্ষ থেকে সবধরণের সুযোগ সুবিধা দেওয়া হচ্ছে।
সাভার-ঢাকা

print

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two × 4 =