ঈদ উপলক্ষে বরিশালের শিশু বিনোদন কেন্দ্রগুলোর নতুন সাজ

post top

আসন্ন ঈদ উপলক্ষে বরিশালের সব ক’টি শিশু বিনোদন কেন্দ্র তৈরী হচ্ছে নতুন সাজে। চলছে ধোয়ামোছা ও রঙ-তুলির কাজে ব্যস্ত সময় পার করছে কতৃপক্ষ।

জানাগেছে, আসন্ন ঈদে শিশুদের বিনোদনের জন্য বরিশাল সিটি কর্পোরেশন (বিসিসি)-এর তত্ত্বাবধায়নে নগরীর আমানতগঞ্জ সুকান্ত বাবু শিশুপার্ক, গ্রীন সিটি পার্ক, আবদুর রব সেরনিয়াবাত (কালী বাড়ি রোড) সড়কস্থ বীর মুক্তিযোদ্ধা কাঞ্চন পার্ক, বান্ধ রোড মুক্তিযোদ্ধা পার্ক, নগরীর আমতলার মোড় স্বাধীনতা পার্ক, বেলস পার্ক (বঙ্গবন্ধু উদ্যান), ৩০ গোডাউন বধ্যভূমি, আমানতগঞ্জ সড়ক শহীদ শুক্কুর-গফুর পার্ক, বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গির সড়কস্থ (সদর রোড) পাবলিক স্কায়ার, বরিশাল জেলা প্রশাসকের তত্ত্বাবধায়নে বাবুগঞ্জ উপজেলায় দূর্গা সাগর দিঘী রয়েছে। 

এছাড়াও বেসরকারী বাণিজ্যিকভাবে বিনোদন কেন্দ্র রয়েছে নগরীর বান্ধ রোড প্লানেট ওয়ার্ল্ড শিশু পার্ক, কড়াপুর নিসর্গ এন্টারটেইনমেন্ট জোন, গৌরনদী উপজেলায় শাহী ৯৯ পার্ক। সর্বমোট প্রায় ১৩টি শিশু পার্ক বা বিনোদন কেন্দ্র। 

দেখাগেছে, আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে শিশুদের বিনোদন দিতে ও প্রাণবন্ত করে তুলতে নগরীর বেশিভাগ পার্কেই ধোয়ামোছা ও রঙ-তুলির কাজ চলছে। বরিশাল নগরী ও নগরীর বাইরে বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে ঈদের দিন বিকেল থেকে শিশু থেকে সব বয়সী মানুষের ঢল নামে। বিশেষ করে শিশুদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠে বিনোদন কেন্দ্রগুলো।

এ বিষয়ে নগরীর বান্ধ রোড প্লানেট ওয়ার্ল্ড শিশু পার্ক-এর পরিচালনায় থাকা সোহরাব হোসেন বলেন, আসন্ন ঈদ উপলক্ষে এই পার্ক প্রতি বছরের মতো এ বছরও ধোয়ামোছা ও পরিস্কার পরিচ্ছন্ন করা হচ্ছে। পাশাপাশি সাউন্ড সিস্টেম বৈদ্যুতিক বাল্ব পরিবর্তন করা হচ্ছে। কোমলমতি শিশুদের মধ্যে পার্কটির সৌন্দর্য্য তুলে ধরতেই এ ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করেছেন কর্তৃপক্ষ।

তিনি বলেন, ঈদে রঙ-বেরঙের নতুন পোশাক পড়ে পরিবার পরিজন নিয়ে শিশু-কিশোর, তরুণ-যুবকসহ সব শ্রেণির মানুষ ক্ষণিকের আনন্দ প্রিয়জনের সাথে ভাগ করে নিতে ছুটে আসছেন এই প্লানেট ওয়ার্ল্ড শিশু পার্কে।

এ প্রসঙ্গে বরিশালের সাবেক জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা পঙ্কজ রায় চৌধুরী বলেন, বিগত দুই বছর মহামারি করোনার কারনে শিশুদের বিনোদন কেন্দ্রগুলো ছিল বেশিরভাগ সময় বন্ধ। শিশুদের মানসিক বিকাশে বিনোদন কেন্দ্রের প্রয়োজন রয়েছে। শিশুদের পাশাপাশি অভিভাবকরাও অবসর সময় কাটাতে পারেন এই পার্কগুলোতে।
তিনি বলেন, শিশু যেমন তার নানা বুদ্ধিমত্তার বিকাশ ঘটায় খেলা বা বিনোদনের মাধ্যমে, তেমনি খেলাধুলার মধ্য দিয়ে তার সামাজিকতা বৃদ্ধি ও শরীর গঠন হয়।

print

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five + eight =